ধ’র্ষণের ভিডিও ছাড়ার হু’মকি দিয়ে ৫ম শ্রেণির ছা’ত্রীকে একাধিকবার ধ’র্ষণ

কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারীতে বান্ধবীর বাড়িতে গিয়ে তার চাচার দ্বারা ধ’র্ষণের শি’কার হয়েছে ৫ম শ্রেণির এক ছা’ত্রী। শুধু তাই নয়, মোবাইল ফোনে ধ’র্ষণের দৃশ্য ধারণ করে তা ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয়ার হু’মকি দিয়ে মে’য়েটিকে একাধিকবার ধ’র্ষণ করে মিজানুর রহমান নামের ওই যুবক।

এ ঘটনায় অ’ভিযুক্ত মিজানকে আ’টক করেছে ভুরুঙ্গামারী থানা পু’লিশ। মঙ্গলবার উপজেলার বঙ্গসোনাহাট ইউনিয়নের বানুরকুটি গ্রাম থেকে তাকে আ’টক করা হয়।ধ’র্ষক মিজানুর রহমান ওই গ্রামের পান মাহামুদের ছেলে।

পুলিশ ও ভু’ক্তভোগী মেয়েটির পরিবারের সদস্যরা জানান, মে’য়েটি অ’ভিযুক্ত মিজানের ভাতিজির বান্ধবী। সেই সূত্রে তাদের বাড়িতে যাতায়াত ছিল মে’য়েটির। কয়েক দিন আগে মে’য়েটি তার বান্ধবীর খোঁজে ওই বাড়িতে যায়। এ সময় মিজান বাড়িতে একা থাকার সুযোগে মে’য়েটিকে জো’রপূর্বক ধ’র্ষণ এবং সেই দৃশ্য মোবাইল ফোনে ধারণ করে। এরপর ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয়ার হু’মকি দিয়ে মে’য়েটিকে একাধিকবার ধ’র্ষণ করে মিজান।

পরে মেয়েটি তার এক আত্মীয়কে বিষয়টি জানালে তিনি (আত্মীয়) থানায় ফোন করে পুলিশকে বিষয়টি জানান। অ’ভিযোগ পেয়ে পুলিশ অ’ভিযান চা’লিয়ে মিজানকে আ’টক করে।

এ বিষয়ে ভুরুঙ্গামারী থানার অফিসার ই’নচার্জ (ওসি) ইমতিয়াজ কবির জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অ’ভিযুক্ত মিজানুর মে’য়েটিকে ধ’র্ষণ ও ভিডিও ধারণের কথা স্বী’কার করেছে।

এ ঘটনায় মে’য়েটির পরিবারের পক্ষ থেকে তাকে একমাত্র আ’সামি করে একটি ধ’র্ষণ মা’মলা করে। ধ’র্ষণের দৃশ্য ধারণকৃত মোবাইল ফোনটি উ’দ্ধারের চে’ষ্টা করছে পুলিশ।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *