উদ্যানে প্রে’মিককে বেঁ’ধে রে’খে প্রে’মিকাকে গণধ’র্ষ ণ, আ’টক ৩

হবিগঞ্জের চুনারুঘাট সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে প্রেমিকের সঙ্গে ঘুরতে এসে গণধ’র্ষণের শি’কার হয়েছে মাধবপুর লোকনাথ উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী (১৬)। এ ঘটনায় তিন যুবককে আ’টক করেছে বন বিভাগ। আজ বুধবার দুপুরে সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে প্রেমিক বি-বাড়িয়ার সড়াইল উপজে’লার রানিদিয়া গ্রামের হাকিমুন হাসান সাকিব (১৮) এর সঙ্গে লোকনাথ উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী (১৬) ঘুরতে আসেন।

এ সময় গহীন জঙ্গলে ৫/৬ জনের একটি বখাটে দল প্রেমিককে বেঁ’ধে রেখে প্রেমিকাকে গণধ’র্ষণ করে। তাদের ‘চিৎকারে সাতছড়ি বিট অফিসার সামসুদ্দিনসহ জঙ্গলে পাহারারত বন বিভাগের লোকজন তিন ব’খাটে যুবককে আ’টক করে চুনারুঘাট থানায় সোপর্দ করে।

আ’টককৃতরা হলেন, চুনারুঘাট উপজেলার আমতলী গ্রামের আব্দুল হাসিমের পুত্র রুবেল মিয়া (২৪) তার বন্ধু রহমতাবাদ গ্রামের মৃ’ত ছিদ্দিক আলীর ছেলে মানিক মিয়া (৩০) ও নরপতি গ্রামের মৃ’ত ওয়াহেদ আলীর ছেলে তিন সন্তানের জনক হারিছ মিয়া (৩৫)।

ধ’র্ষণের শি’কার স্কুলছাত্রী বর্তমানে চুনারুঘাট থানা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে। প্রেমিক যুবক পলাতক। রাত ১০টা পর্যন্ত এ রির্পোট লিখা পর্যন্ত কোনো মা’মলা হয়নি।

চুনারুঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ নাজমুল হক বলেন, স্কুলছাত্রীর অভিভাবকদের খবর দেওয়া হয়েছে। স্কুলছাত্রী বলছে তাকে বকাটেরা ধ’র্ষণ করেছে। বি’ষয়টি নিশ্চিত নয়। ডাক্তারি পরীক্ষায় বি’ষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *